সয়াবীন ডাল



সয়াচাঙ্ক বা সয়াবীনের বড়ি এখন আমাদের ভাঁড়ার ঘরের স্থায়ী সদস্য| সয়াবীন দিয়ে একাধিক পদও বানানো যায়| পুষ্টিগুনেও অতুলনীয়| ঘুরিয়ে ফিরিয়ে রান্না করার প্রয়াসেই বানিয়ে ফেলা সয়াবীন ডাল|

উপকরণ

সয়াবীন চাঙ্ক - ১বড় বাটি ( গরমজলে সেদ্ধ করে জলটা ফেলে দিতে হবে| )| মসুর ডাল - ২৫ গ্রাম বিউলির ডাল - ২৫ গ্রাম অড়হর ডাল - ২৫ গ্রাম মটর ডাল - ২৫ গ্রাম মুগের ডাল - ২৫ গ্রাম পিঁয়াজ - ১ টা ঝিরিঝিরি করে কাটা রসুন-২ কোয়া ডুমো ডুমো করে কাটা আদা - হাফ চামচ পেস্ট শুকনো লঙ্কা- ২-৩ টে গোটা তেজপাতা - দুটো চিনি‚ নুন -স্বাদমত লঙ্কাগুঁড়ো - এক চা চামচ (অপশনাল) হলুদ - পরিমাণমত আলু- একটা ডুমো ডুমো করে কাটা সরষের তেল - ৩ বড় চামচ| গোটা গরমমশালা - দুটো ছোট এলাচ‚ দুটো লবঙ্গ ‚ অল্প দারুচিনি টম্যাটো কুচি - ১ টা|

প্রণালী

সব ডালগুলো মিশিয়ে নিয়ে ভালো করে ধুয়ে প্রেশারে বসিয়ে দিন| ডাল সেদ্ধ হতে সময় নেবে| ততক্ষণ আসুন আমরা আলুটা ভেজে ফেলি| কড়াইতে তেল দিয়ে আলুটা ভাজুন লাল করে| আলুটা ভাজা হলে তুলে রাখুন| এবার ঐ তেলেতে গোটা গরমমশালা ফোড়ন দিয়ে‚ পিঁয়াজকুচি রসুনকুচি দিয়ে ভালো করে নাড়চাড়া করতে থাকুন| এবার ওতে ব্রাউন রঙ ধরলে একে একে শুকনো লঙ্কা‚ তেজপাতা সহ সব মশালা আর টম্যাটোকুচি দিয়ে কষতে থাকুন। মশলা কষা হয়ে গেলে ওতে সেদ্ধ করা সয়াবীন বড়ি আর ভাজা আলুগুলো দিয়ে আবার ভালো করে কষতে থাকুন| ঢিমে আঁচে দিন| দেখুন তো ডালটা ভালোমত সেদ্ধ হয়ে গেছে কিন| সব ডাল কিন্তু পেস্ট হয়ে যাবে| এবার ঐ কষা আলু আর সায়াবীনের মধ্যে ডালটা ঢেলে দিন| ভালো করে মিশিয়ে নিন ডাল আর সয়াবীন কষা| ভালো করে মিশিয়ে ফুটে গেলে ডালের নুন - মিস্টিটা টেস্ট করুন| স্বাদে নুন-মিস্টি সমান মাপের হবে| গরম গরম ভাত বা রুটি দুটোতেই জমে যাবে| তাহলে আর দেরী কিসের? বানিয়ে ফেলুন সয়াবীন ডাল|
বিস্তারিত জানতে ক্লিক করুন

    0/Post a Comment/Comments

    Stay Connected

    Business