তিনগুণ ট্রেন ভাড়ার দাবি, গুজরাটে পরিযায়ী শ্রমিককে বেধড়ক মার! অভিযুক্ত বিজেপি নেতা

ei samay
বাঁদিকে আক্রান্ত ও ডানদিকে অভিযুক্ত






মালগাড়ির ধাক্কায় যেদিন ছিন্নভিন্ন হয়ে গেল ১৬ পরিযায়ী শ্রমিকের দেহ, ঠিক সেদিনই আরও এক অমানবিক ঘটনার সাক্ষী রইল দেশ। এবারের ঘটনাস্থল প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী গুজরাটের সুরাট। অভিযোগ, এক পরিযায়ী শ্রমিকের কাছে বাড়ি ফেরার জন্যে তিনগুণ ট্রেন ভাড়া দাবি করা হয়। আর তা নিয়ে রীতিমতো শোরগোল পড়ে গিয়েছে। কারণ শুধু ট্রেনভাড়া দাবিই নয়, ওই পরিযায়ী শ্রমিককে বেধড়ক মারধর করা হয় বলে অভিযোগ।

কংগ্রেসের অভিযোগ, ওই পরিযায়ী শ্রমিককে যে ব্যক্তি মারধর করেছে, তিনি বিজেপির কর্মী। যদিও অভিযোগ অস্বীকার করেছে বিজেপি। ওই বিজেপি কর্মীর নাম রাজেশ ভর্মা। পরিযায়ী শ্রমিককে মারধরের পাশাপাশি গুজরাটে আটকে পড়া ছত্তিশগড়ের শ্রমিকের কাছ থেকে ১ লাখেরও বেশি টাকা নেওয়ার অভিযোগ উঠেছে তাঁর বিরুদ্ধে। বিজেপি অস্বীকার করলেও সোশ্যাল মিডিয়ায় ওই ব্যক্তি নিজেকে বিজেপি নেতা বলেই পরিচয় দিয়েছেন। রাজ্যের বিজেপি নেতাদের সঙ্গে তাঁর একাধিক ছবিও রয়েছে।


অভিযোগ, বাসুদেব বর্মা নামে এক ব্যক্তি বাড়ি ফেরার জন্য টিকিট কাটতে গেলে রাজেশ ভর্মার অনুগামীরা ওই ব্যক্তির থেকে অতিরিক্ত টাকা চায়। সেই শ্রমিক তা দেননি। বরং এহেন দাবির প্রতিবাদ করেন। আর এরপরই রড দিয়ে তাঁকে মারধর করা হয়। এমনকী পাথর ছুঁড়ে মারা হয় বলে অভিযোগ ওঠে। সুরাটের গেরুয়া শিবিরের প্রধান অবশ্য অভিযুক্ত রাজেশ বর্মাকে বিজেপি কর্মী হিসেবে অস্বীকার করেছেন। অভিযুক্ত রাজেশ বর্মার বিরুদ্ধে থানায় মামলা রুজু হয়েছে।

0/Post a Comment/Comments

Stay Connected

Business