তৃণমূলে চন্দ্র বসু?



নেতাজী পপৌত্রকে দলে রাজ্য সহ সভাপতি পদ দিয়ে বাংলা জয়ের স্বপ্ন দেখেছিল বিজেপি।কিন্তু সে আশা পূরণ হয়নি।সব ঠিকঠাক চলছিল বাঁধ সাধলো এন আর সি।চন্দ্র বসু এন আর সির বিরুধ্যে বার বার মুখ খুলে দলের রোষানলে পরে।বিজেপি চেয়েছিল নেতাজীর প্রতি মানুষের আবেক কে কাজে লাগিয়ে বাঙালী র কাছে আসতে।কিন্তু চন্দ্র বসু কে দিয়ে সেটা হচ্ছিল না তিনি বার বার বাংলার কথা বলেছেন, তিনি চেয়েছিলেন বাঙালী সংস্কৃতি নিয়ে বাংলার বিজেপি চলবে।বাংলার সংস্কৃতিতে হিন্দী সংস্কৃতির আমদানি তিনি মেনেনিতে পারেননি।দলের মধ্যে থেকেও অনেকবার তিনি সরব হয়েছিলেন।এন আর সি ,ভাটপাড়া, নোটবন্দি নিয়ে বার বার মুখ খুলেছিলেন।এমনকি দিলীপ ঘোষের লাগামহীন কথা বার্তার ও প্রকাশ্যে বিরোধিতা করেছিলেন।
প্রেক্ষাপট তৈরি ছিল শুধু সময়ের অপেক্ষা বাকি ছিল তাই রাজ্য কমিটির পুনর্গঠনে দিলীপ ঘোষ শেষ পেরেক টা মারলেন।রাজ্য কমিটির সহ সভাপতিরপদ খোয়াতে হলো তাকে।
এর মধ্যেই জল্পনা তবে কি তিনি তৃণমূলে যোগ দিচ্ছেন নাকি রাজনীতির ময়দান থেকে বিদায় নিচ্ছেন।দাবি আরো ঘনীভূত হচ্ছে কারণ নেতাজী পরিবার বরাবর তৃণমূলের কাছেই ছিল।কৃষ্ণা বসু তৃণমূলের সংসদ ছিলেন।এবার আপাদমস্তক একজন বাঙালী বাবু বাংলার কোনো দলের সাথে থাকবেন এটাই ধরে নিচ্ছে অনেকে।

0/Post a Comment/Comments

Stay Connected

Business