একটি মেয়ের ইতিকথা


                          লেখক 👉    স্বপ্না ভট্টাচার্য্য
                               সোদপুর, কলকাতা



মেয়ে হয়ে যখন জন্ম নিলাম, 
           কেউ তো হলনা খুশি
শুধু মাই বললেন চেয়েছি যা
    পেয়েছি তারও চেয়ে বেশি।

কিছুদিন পরে জন্ম নিল, 
     আমার সে ছোটো ভাই। 
সবাই তখন আরও বেশি মোরে
        করলো যে দূর-ছাই।। 

বললো সবাই বংশের প্রদীপ
         এইতো এগোবে বংশ। 
শুধু মা বলিলেন কাঁদিস নে তুই, 
       তুই যে আমারই অংশ। 

দেশ যে মা, মাটি যে মা-
         সবাই মা মা করে। 
শুধু জন্ম নিলেই ঘরে সে-মা
            অবহেলা করে তারে।। 

হাজার ছেলের জন্ম দিলেও, 
               হয়না যে তা বেশি। 
শুধু মেয়ের জন্ম হলেই পরে
               সবাই যে অখুশি।।

যে ছেলেটিরে অতিযত্নে-
       লালন করলো সবাই। 
  সেই ছেলেটিই ভবিষ্যতে
            সবারে যে ঠকায়। 

তবুও ছেলে হোক না আবার। 
             মেয়ে দিয়ে কি হবে? 
  জন্ম নিলে ছেলে আবার, 
                বংশ রক্ষা হবে। 

হায়রে বংশ এ-বংশ কে
          বয়ে চলেছে কে? 
একটি মেয়েই জন্ম যে দেয়
                একটি ছেলেকে। 

তবুও মেয়ের দাম কি আছে?
              এত সবারই বোঝা। 
     যত্নে তারে লালন কোরো
               বৃদ্ধাশ্রম লাগবে না আর খোঁজা।।

0/Post a Comment/Comments

Stay Connected

Business